বৃহস্পতিবার, রাত ৩:৩৭, ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শনিবার, ২৭, আগস্ট, ২০২২ 131 বার পড়া হয়েছে

ঝালকাঠি জেলা পরিষদে চেয়ারম্যান পদে ৬ প্রার্থী

ঝালকাঠি প্রতিনিধ

সদ্য ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী আগামী ১৭ অক্টোবর সারা দেশের ন্যায় ঝালকাঠিতেও জেলা পরিষদের ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হবে। এরই মধ্যে ঝালকাঠি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে আগ্রহী ৬জন প্রার্থী নিয়ে ব্যাপক আলোচনা চলছে। ইতিমধ্যে ঝালকাঠি আওয়ামীলীগের ৬জন প্রার্থী কেন্দ্রে যোগাযোগ শুরু করেছে। জেলায় অন্য কোন দলের প্রার্থী হিসাবে এখনো কারো নাম শোনা যাচ্ছেনা। তবে দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনা জেলা পরিষদে দলীয় প্রার্থী মনোনয়ন দিবেন বলে দলীয় সূত্রে জানাগেছে।জানাগেছে, আগ্রহী ৬ প্রার্থীর মধ্যে বর্তমানে ঝালকাঠি জেলা পরিষদের প্রশাসক ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সরদার মো. শাহ আলম দূর্দিনের পরীক্ষিত, দলের প্রবীন ও ক্লিন ইমেজের। তার বিরুদ্ধে তৃনমুল আওয়ামীলীগে কোনো বিতর্র্ক নেই। তার উপর ইতিমধ্যে দু’দফা জেলা চেয়ারম্যান পদে দায়িত্ব পালনকালে তিনি দূর্নীতি ও টেন্ডারবাজী মুক্ত রেখে দায়িত্ব পালন করার নজির স্থাপন করেছেন।
তফসিল ঘোষনার পর থেকে স্থানীয় সর্বমহলে আলোচিত ও গ্রহনযোগ্য প্রার্থী হিসাবে সবার শীর্ষে রয়েছেন জেলা আওয়ামীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট খান সাইফুল্লাহ পনির। তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ সর্বস্থানে প্রচারনায় এগিয়ে রয়েছেন। ক্লিন ইমেজের নেতা হিসেবে খান সাইফুল্লাহ পনিরের নাম ছড়িয়ে পড়েছে জেলার সর্বত্র। ছাত্রলীগের থেকে শুরু করে বর্তমানে জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন। জেলায় সংগঠনকে শক্তিশালী অবস্থানে নেয়া ও ব্যক্তিগত নিরপেক্ষ ইমেজের মাধ্যমে তিনি একক জনপ্রিয়তা অর্জনে সক্ষম হয়েছেন।
অপরদিকে রাজাপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি, সদ্য বিদায়ী জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মো. ফায়জুর রব আজাদ রয়েছেন আগ্রহী প্রার্থীদের তালিকায়। তিনি এই নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদের জন্য দলীয় মনোনয়ন পেতে আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা বরাবরে আবেদন জানিয়েছেন।ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গনযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ থেকে বি.এ অনার্স মাষ্টার্স সম্পন্ন করে বিশ্বখ্যাত মুসলিম ইউনিভার্সিটি “তিউনিসিয়ার ইজ্জাতুয়ানা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে উচ্চ ডিগ্রী ও বিশ্ব ইসলামিক শিক্ষা বিজ্ঞান ও সাংস্কৃতিক সংস্থার (আইসিসকো) বৃত্তির জন্য যোগ্য বিবেচিত ফায়জুর রব আজাদ ঝালকাঠি-১ আসনের সংসদ সদস্য বললুল হক হারুনের সহোদর।
এছাড়াও আওয়ামী লীগের পরীক্ষিত নেতা, জেলা সহ-সভাপতি ও নলছিটি উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান বিশিষ্ট আইনজীবী এ্যাড. জি কে মোস্তাফিজুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সদর উপজেলা চেয়ারম্যান খান আরিফুর রহমান ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বিদায়ী জেলা পরিষদের সদস্য মোঃ সালাহ্উদ্দিন আহম্মেদ সালেক ঝালকাঠি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান।
এদিকে আসন্ন জেলা পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষনা হওয়ার পর থেকে জেলার বিভিন্ন স্থানে আলোচনা চলছে কে হবেন ঝালকাঠি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান। কে পাবেন আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন এ নিয়ে এখন দখিনের জনপদ ঝালকাঠি সর্বত্র আলোচনা চলছে। মনোনয়ন পেতে সবাই নিজ নিজ দিক থেকে লবিং তদবির চালিয়ে যাচ্ছেন বলে শোনা যাচ্ছে।
দলীয় সুত্রে জানাগেছে, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য, কেন্দ্রীয় ১৪ দলের সমন্বয়ক ও মুখপাত্র, সংসদ সদস্য আমির হোসেন আমু যাকে পছন্দ করবেন তিনিই দলীয় মনোনয়ন পাবেন। তবে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পূর্বে আয়োজিত কোন নির্বাচনে দলে অনুপ্রবেশকারী কাউকে মনোনয়ন দিবেনা দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনা।
ঘেষিত তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র ১৫ সেপ্টেম্বর, বাছাইয়ের ১৮ সেপ্টেম্বর, আপিল ১৯-২১ সেপ্টেম্বর, নিস্পত্তি ২২-২৪ সেপ্টম্বর, প্রার্থীতা প্রত্যাহারে ২৫ সেপ্টেম্বর, প্রতীক বরাদ্দ ২৬ সেপ্টেম্বর ও ১৭ অক্টোবর সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত ভোট গ্রহন করা হবে। নির্বাচনে রিটার্নিং অফিসারের দায়িত্ব পালন করবেন জেলা প্রশাসক।


ট্যাগস :
নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর
সবশেষ নিউজ