বুধবার, রাত ৮:০৯, ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মঙ্গলবার, ৩০, আগস্ট, ২০২২ 118 বার পড়া হয়েছে

লবণাক্ততা ও উপকূলের বিপন্ন জীবন’ গবেষণা গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন

শ্যামনগর (সাতাক্ষীরা) প্রতিনিধিঃ
শ্যামনগরে ‘ লবণাক্ততা ও উপকূলের বিপন্ন জীবন’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন ও গবেষণা ফলাফল উপস্থাপন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল ৩০ আগষ্ট সোমবার বেলা ১১ টায় বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান বারসিকের আয়োজনে শ্যামনগর উপজেলা পরিষদ হল রুমে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আক্তার হোসেন এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে ‘লবণাক্ততা ও উপকূলের বিপন্ন জীবন’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন সহ বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম আতাউল হক দোলন, গবেষণার ফলাফল উপস্থাপন করেন বারসিক পরিচালক ও গবেষক পাভেল পার্থ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রভাষক মোঃ সাইদ-উজ-জামান সাইদ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মিসেস খালেদা আইয়ুব ডলি, শ্যামনগর উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি আলহাজ্ব জি এম আকবর কবীর, শ্যামনগর থানা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) সানোয়ার হোসাইন মাসুম, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা আরিফুজ্জামান, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা এস এম এনামুল ইসলাম, শ্যামনগর সদর ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান ইউপি সদস্য দেলোয়ারা বেগম, উপজেলা অনলাইন নিউজ ক্লাবের সভাপতি মারুফ হোসেন মিলন, রিপোটার্স ক্লাবের সম্পাদক আমজাদ হোসেন (মিঠু) । এসময় উপস্থিত ছিলেন বারসিকের রামকৃষ্ণ জোয়ারদার, চম্পা রানী মল্লিক, মফিজুর রহমান, বিশ্বজিৎ মন্ডল, পার্থ সারথী পাল, বাবলু জোয়ারদার সহ উপজেলা প্রশাসন, কৃষি ও মৎস্য বিভাগ, বেসরকারি উন্নয়ন সংগঠন, গণমাধ্যমকর্মী, যুব ও জনসংগঠন প্রতিনিধি, শিক্ষক ও স্থানীয় লেখক-গবেষক । সমগ্র অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন বারসিকের লিয়াজু অফিসার গাজী আল ইমরান।
কৃষি ও ধানের উপর লবণাক্ততার প্রভাব নিয়ে গবেষণা হলেও গৃহস্থালী সামাজিক জীবনে লবণাক্ততার প্রভাব নিয়ে খুব বেশি গবেষণা হয়নি। সাতক্ষীরার শ্যামনগরের ১২টি ইউনিয়নের গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর সাথে বছরব্যাপি ধারাবাহিক গবেষণার মাধ্যমে প্রাত্যহিক জীবনের নানাক্ষেত্রে লবণাক্ততার প্রভাব নিয়ে ১৬টি বিষয়ে প্রতিবেদন তৈরি করেছেন একদল তরুণ গবেষক। কেবল জনগোষ্ঠী নয়, সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান এবং ইউনিয়ন পরিষদ লবণাক্ততা বিষয়ে কি ধরণের কাজ করছেন বইটিতে সেটিও তুলে ধরা হয়েছে। বেসরকারি উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠান বারসিকে কর্মরত এই গবেষকগণ সকলেই উপকূল অঞ্চলের বাসিন্দা এবং জন্ম থেকে জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে লবণাক্ততার প্রভাব উপলব্ধি করছেন। বইটির ফলাফল উপলব্ধি করে উপস্থিত বক্তারা বলেন, দীর্ঘদিন পর শ্যামনগরে একটি গবেষণা কাজের প্রকাশনা অনুষ্ঠান হল এবং উপকূলের লবণাক্ততার সমস্যা নিয়ে একটি বই প্রকাশিত হল। লবণাক্ততা নিরসন এবং এর সাথে খাপ খাইয়ে বেঁচে থাকার জন্য ভবিষ্যতে বিভিন্ন প্রকল্প, গবেষণা ও কর্মসূচি গ্রহণে এই বইটির গবেষণাগুলো বেশ কাজে লাগবে বলে উল্লেখ করেন বক্তারা।

ছবির ক্যাপশনঃ শ্যামনগরে লবণাক্ততা ও উপকূলের বিপন্ন জীবন বইয়ের মোড়ক উন্মোচন।


ট্যাগস :
নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর
সবশেষ নিউজ